মোবাইলের ব্যাটারি তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যায়?সমাধান এখানে দেখুন।


mobile phone battery safety

প্রযুক্তির উৎকর্ষতায় আমরা আজ ছেলে বুড়ো সবাই স্মার্টফোন ব্যবহার করি।বিশেষ করে তরুণ প্রজন্ম স্মার্টফোন ছাড়া নিজেকে কল্পনা করতে পারে না।কিন্তু স্মার্টফোনের বিড়ম্বনা তো আছেই।বড় ডিসপ্লে,উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন প্রসেসর,মাল্টি টাস্ক সহ নানা কারণে স্মাট ফোনের চার্জ শেষ হয়ে যায় তাড়াতাড়ি।ব্যাটারি নষ্টও হয় বেশি সম্ভবত এই কারণে।আজকে আপনাদের কিছু টিপস দিব যাতে আপনার প্রিয় স্মার্টফোনের রক্ষার জন্য।

  • ব্যাটারি ১০০% ফুল করা উচিত না।বেশির ভাগ ব্যাটারির সোয়েটিং পিরিয়ড শুরু হয় ৮০% চার্জ হওয়ার পর পর।তাই নূন্যতম ৮০% এর মধ্যে চার্জ করা ভালো।
  • আমরা অনেকেই অনেক কম চার্জেই ফোনে কথা বলি,এটা মোটেই উচিত নয়।বিশেষ করে ১০% এর নিচে চার্জ থাকলে ফোনে কথা না বলাই উচিত।এতে ফোনের ব্যাটারির উপর বেশি চাপ পড়ে।তাই ১০% এর নিচে চার্জ নেমে গেলে তাড়াতাড়ি চার্জ করে নেয়টা উচিত।
  • ফোন হাতে বা বাইরে না রেখে পকেটে রাখ ভালো।কারণ ফোনে যত বেশি তাপ লাগে তত তার কার্যক্ষমতা হারায়।তাই তাপ থেকেই ফোনকে বাইরের তাপ থেকে নিরাপদ রাখা উচিত।
  • এখনকার নতুন ট্রেন্ড হলো পাওয়ার ব্যাংক ব্যবহার করা।কিন্তু নিম্নমানের পাওয়ার ব্যাংক ব্যাটারির জন্য ক্ষতিকর।তাই পাওয়ার ব্যাংক ব্যবহারে সর্তক থাকুন।ভালো মান বা ব্রান্ড দেখে পাওয়ার ব্যাংক ব্যবহার করুন।
  • ফোন গরম হয়ে যাওয়া ব্যাটারির জন্য খুবই খারাপ বিষয়।চার্জে থাকা কালীন ফোন গরম হয়ে গেলে তাড়াতাড়ি চার্জ অফ করে দেয়া উচিত।কেসিং এ রেখে ফোন চার্জ দিলে ফোন গরম হয় বেশি।
  • অতিরিক্ত চার্জ করা কখনোই ভালো হতে পারে না।তাই কারো যদি অতিরিক্ত চার্জ দেয়ার অভ্যাস থাকলে বাদ দিন।বিশেষ করে রাতে চার্জে লাগিয়ে ঘুমানো এটা ফোনের ব্যাটারির জন্য খুবই ক্ষতিকর।
  • সবশেষে আপনার কেনা স্মার্ট ফোনটির ক্যাটালগ বা ম্যানুয়াল ভালো করে পড়ে নিন।সেখানে নির্দেশিত নিয়মগুলো মেনে চলুন।

উপরের নিয়মগুলো মেনে চললে আশা করছি আপনার স্মার্টফোনের ব্যাটারি অনেক দিন সুরক্ষিত থাকবে। আজ তাহলে এই পর্যন্ত।অন্য কোন দিন আরো টিপস নিয়ে হাজির হব আপনাদের দোড়গোড়ায়।সেই পর্যন্ত ভালো থাকবেন।